Recent News

বিজেপি শাসিত অসমে ১৯৫১ সালকেই ভিত্তি ধরে এনআরসি?‌

  • 1
  •  
  •  
  •  
    1
    Share

বি.বি নিউজ ওয়েবডেস্কঃ ১৯৫১ সালকে ভিত্তি বছর ধরে নতুন করে অসমে এনআরসি তালিকা তৈরির দাবি তুললেন বিজেপি বিধায়ক শিলাদিত্য দেব। ১৯ লাখ মানুষকে বাদ দিয়ে প্রকাশিত হয় অসমের এনআরসি তালিকা। কিন্তু এই তালিকায় খুশি নন বিজেপি নেতারা। তাঁদের আমলেই প্রকাশিত তালিকা বাতিলের দাবি তুলেছে রাজ্য সরকার। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও জানিয়েছেন, গোটা দেশের সঙ্গে নতুন করে এনআরসি হবে অসমে। এরপরই বিজেপি বিধায়ক শিলাদিত্য দেব দাবি তোলেন, ১৯৭১ সালের ২৪ মার্চের বদলে ১৯৫১ সালকে ভিত্তি বছর করে নতুন করে এনআরসি করতে হবে।

এদিকে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (‌ক্যাব)‌ বা এনআরসি নিয়ে শিলাদিত্য কেন, অমিত শাহ–‌র বক্তব্যকেও গুরুত্ব দিতে নারাজ অসমের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ। প্রবীণ কংগ্রেস নেতার অভিযোগ, দেশের বেহাল অর্থনীতির কারণে আর্থিক দুর্দশা থেকে সাধারণ মানুষের দৃষ্টি ঘোরাতেই এনআরসি আর ক্যাব নিয়ে নাটক করছে বিজেপি।

তাঁর মতে, সুপ্রিম কোর্টের নজরদারিতে হয়েছে এনআরসি তালিকা। প্রচুর টাকা খরচ হয়েছে গোটা প্রক্রিয়ায়। তাই নতুন করে এনআরসি তালিকা তৈরি অযৌক্তিক। তাঁর প্রশ্ন, অসমের নাগরিকদের কাছে ভোটার তালিকা, না এনআরসি, কোনটা আসল প্রমাণ? সাধারণ মানুষের মনে এই নিয়ে সংশয় রয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

গগৈয়ের পাশাপাশি বদরুদ্দিন আজমলও এনআরসি বাতিল করা নিয়ে বিজেপি সরকারের মনোভাবের কড়া সমালোচনা করেছেন। এআইইউডিএফ সাংসদ আজমলের আশঙ্কা, গোটা দেশের সঙ্গে অসমেরও সমস্ত মুসলিমকেই বিদেশি বানাতে নতুন করে ছক কষা হচ্ছে। গোটা দেশেই মুসলিমদের নাগরিকত্ব হরণ করতে চায় বিজেপি। তাই মুসলিমদের ঘুসপেটিয়া প্রমাণ করতেই নতুন করে এনআরসি আনার কথা বলছেন অমিত শাহরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *